ইরান-যুক্তরাষ্ট্রের উত্তেজনায় বিশ্ববাজারে বাড়ছে তেলের দাম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক প্রকাশ: ২০২০-০১-০৮ ২৩:৪৩:১৯, আপডেট: ২০২০-০১-০৯ ১১:২৬:৫০

মার্কিন হামলায় ইরানের কুদস বাহিনীর ক্ষমতাধর জেনারেল কাসিম সুলেইমানি নিহত হওয়ার পর থেকে মধ্যপ্রাচ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। ইরান ও যুক্তরাষ্ট্রের চলমান উত্তেজনার প্রভাব পড়েছে তেলের বাজারে।

বুধবার ভোরে ইরানের বিপ্লবী গার্ড বাহিনী ইরাকের ভূখণ্ডে অবস্থিত দুটি মার্কিন সামরিক ঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায়। মূলত এরপরই বিশ্ববাজারে বাড়তে শুরু করেছে জ্বালানি তেলের দাম।

এ বিষয়ে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম বলছে, অপরিশোধিত তেলের দাম এশিয়ার বাজারে কমপক্ষে ৪.৫ শতাংশ বেড়ে প্রতি ব্যারেল বিক্রি হচ্ছে ৬৫.৬৫ মার্কিন ডলারে। এছাড়া বিশ্ববাজারে স্বর্ণের দামও বেড়ে চলেছে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, মধ্যপ্রাচ্যের চলমান পরিস্থিতিতে তেলের সরবরাহ মারাত্মকভাবে বিঘ্নিত হতে পারে। এ ঘটনার প্রভাব পড়েছে আন্তর্জাতিক বাজারেও। জাপানের বেঞ্চমার্ক নিকির শেয়ার সূচকের পতন ঘটেছে ২২৫ পয়েন্ট যা শতকরা ২.৫ ভাগেরও বেশি। পশ্চিমা দেশগুলোতেও একই অবস্থা।

জেনারেল কাসিম সুলেইমানি হত্যার প্রতিশোধের অংশ হিসেবে এক ডজনেরও বেশি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়ে ইরাকে অবস্থিত একটি মার্কিন ঘাঁটি গুঁড়িয়ে দিয়েছে ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি। একই সঙ্গে ইরাকের আরেকটি ঘাঁটিতেও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে ইরান। এ হামলায় ৮০ জন নিহতের পাশাপাশি ২০০ মার্কিন সেনা আহত হয়েছেন বলে দাবি করেছে ইরান।

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।