সফল যাঁরা কেমন তাঁরা

মোরশেদ আলম; একজন স্বপ্নদর্শী মানুষ

নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশ: ২০২০-০১-০৬ ০১:২৪:০০

মানুষ তার স্বপ্নের চেয়েও বড়। মানুষই চিন্তা, মেধা ও শ্রমের বিকাশ ঘটিয়ে প্রতিষ্ঠা করেছেন নতুন নতুন সোপানের। তেমনি একজন শিল্পউদ্যোক্তা দেশের বৃহৎ শিল্পগ্রুপ বেঙ্গল গ্রুপ ও আরটিভির চেয়ারম্যান মোরশেদ আলম।

জন্মেছেন নোয়াখালি জেলার সোনাইমুড়ি উপজেলার নাটেশ্বর গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে ১৯৫০ সালে। পিতা মরহুম আলহাজ্জ্ব ইদ্রিস মিয়া এবং মাতা তাহেরা খাতুন।

তিনি কর্মজীবন শুরু করেন একজন প্লাস্টিক দ্রব্য প্রস্তুতকারী শিল্পোদ্যোক্তা হিসেবে ১৯৬৯ সালে। এরপর, তিনি কঠোর পরিশ্রম, সততা, একাগ্রতা, নিষ্ঠা, নিয়মানুবর্তিতা ও কমিটমেন্ট দিয়ে গড়ে তোলেন একের পর এক সফল শিল্প-প্রতিষ্ঠান যা দেশে এবং বিদেশে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করার পাশাপাশি প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করে দেশের অর্থনীতিতে অবদান রাখছে।
এপর্যন্ত বেঙ্গল গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজ এবং সদস্য শিল্প প্রতিষ্ঠান আঠারোটি। এরমধ্যে ব্যাংক, বীমা, মিডিয়া, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, হাসপাতালসহ বিভিন্ন ধরণের প্লাস্টিক শিল্প, কেমিক্যাল, ফুড প্রসেসিং, করগোরেট কার্টুন শিল্প রয়েছে। এই গ্রুপের প্রতিটি শিল্প প্রতিষ্ঠানই আন্তর্জাতিক মানের মেশিন সমৃদ্ধ, পরিবেশবান্ধব উৎপাদন ব্যবস্থা এবং উন্নতমানের কর্মপরিবেশ সমৃদ্ধ। তাঁর গড়া প্রতিষ্ঠানগুলো বাংলাদেশে উল্লেখযোগ্য কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করেছে।
জনাব মোরশেদ আলম বাংলাদেশের একজন শীর্ষস্থানীয় প্লাস্টিক কেমিক্যালস এবং কাস্ট পলিয়েস্টার টেকনোলজি বিশেষজ্ঞ।
মোরশেদ আলম নতুন নতুন শিল্প উদ্যোগের পাশাপাশি বহু সামাজিক, ধর্মীয় ও সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলেন। সেই সাথে তিনি অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠা করে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে শিক্ষা বিস্তারে বিশেষ অবদান রাখছেন। সরকার অনুমোদিত মোরশেদ আলম ট্রাস্ট গঠন করে তিনি দরিদ্র ছাত্রদের বৃত্তিপ্রদান, চিকিৎসা সাহায্য, অসচ্ছল পরিবারের বিবাহযোগ্যা কন্যাদের বিবাহে আর্থিক সহায়তা, প্রাকৃতিক বিপর্যয়ে সাহায্য, হজ্বপালনে সহায়তা, গ্রামের রাস্তাঘাট নির্মাণে অনুদান প্রদান করে থাকেন।
জনাব মোরশেদ আলম নোয়াখালী ২ আসন থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য। একজন দূরদর্শী, লোকহিতৈষী এবং স্বপ্নদর্শী মানুষ। তাঁর কর্মের স্বীকৃতি হিসেবে তিনি এপর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক বহুবার স্বর্ণ ও রৌপ্য, জাতীয় বাণিজ্য ট্রফি, অনেকবার কমার্শিয়াল ইম্পর্টেন্ট পার্সন (সি.আই.পি) এবং ডিএইচএল দি ডেইলি স্টার কর্তৃক বেস্ট এন্ট্রারপ্রাইজ এ্যাওয়ার্ড এ ভূষিত হয়েছেন।

 

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।