শেয়ারবাজারে সরকারি বন্ডের লেনদেন শীঘ্রই: গভর্নর

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, অর্থসংবাদ.কম, ঢাকা প্রকাশ: ২০২২-০৮-০৪ ১৭:৪৫:৫৮, আপডেট: ২০২২-০৮-০৪ ১৯:১৮:৫৮

খুব শীঘ্রই সরকারি বন্ডগুলো সেকেন্ডারি মার্কেটে (শেয়ারবাজার) লেনদেন হবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদার। বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা জানান।

গভর্নর বলেন, শেয়ারবাজারের উন্নয়নের জন্য বিএসইসি ভালো কাজ করছে। ক্যাপিটাল মার্কেটে কমার্শিয়াল ব্যাংকের এক্সপোজার লিমিটের (বিনিয়োগসীমা) যে সংজ্ঞা ছিল, বাঁধা ছিল সেটি সমাধান হয়ে গেছে।

তিনি বলেন, আমাদের শেয়ারবাজারের উন্নয়ন হয়েছে। তবে বন্ড মার্কেটের উন্নয়ন হয়নি। আমি অর্থসচিব থাকার সময়েই বিএসইসি চেয়ারম্যানকে বলেছিলাম যে, আপনারা বন্ড মার্কেটের ওপর নজর দেন। গত এক বছর ধরে উনি (বিএসইসি চেয়ার‌্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম) বন্ড মার্কেট নিয়ে কাজ করছেন।

গভর্নর আরও বলেন, বন্ড মার্কেটে উন্নয়ন অনুপস্থিত। এজন্য আমরা সরকারি বন্ডগুলো সেকেন্ডারি মার্কেটে নিয়ে যাচ্ছি। বাংলাদেশ ব্যাংক একটা প্ল্যাটফর্ম তৈরী করে ফেলেছি। অলরেডি সেকেন্ডারি মার্কেটে ট্রায়াল হয়ে গেছে। খুব শীঘ্রই সরকারি বন্ডগুলো সেকেন্ডারি মার্কেটে লেনদেন হবে।

এদিকে, শেয়ারবাজারে ব্যাংকের বিনিয়োগসীমা (এক্সপোজার লিমিট) বাজার মূল্যের পরিবর্তে ক্রয় মূল্যে হিসাবায়নের নির্দেশনা দিয়ে সার্কুলার জারি করা হয়েছে। আজ কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ডিপার্টমেন্ট অব সাইট সুপারভিশন থেকে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা জারি করে দেশের সব তফসিলি ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠানো হয়েছে।

সার্কুলারে শেয়ার, কর্পোরেট বন্ড, ডিবেঞ্চার, মিউচুয়াল ফান্ড ও অন্যান্য পুঁজিবাজার নিদর্শনপত্রের বাজারমূল্য হিসাবায়নের ক্ষেত্রে বিনিয়োগসীমা বাজার মূল্যের পরিবর্তে ক্রয় মূল্যে গণনা করার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।