বেনাপোল দিয়ে ভারতে সাড়ে ৪ লাখ মেট্রিক টন পণ্য রপ্তানি

ডেস্ক রিপোর্টারনিউজ ডেস্ক, অর্থ সংবাদ.কম, ঢাকা প্রকাশ: ২০২২-০৮-০৩ ০৯:৫৮:৪১, আপডেট: ২০২২-০৮-০৩ ১০:২৬:২৬

গত অর্থবছরে (২০২১-২০২২) বেনাপোল বন্দর দিয়ে ভারতে পণ্য রপ্তানির পরিমাণ বেড়েছে। এসময়ে মোট ৪ লাখ ৫১ হাজার ৩৯৫ মেট্রিক টন পণ্য ভারতে রপ্তানি হয়েছে। যা এর আগের অর্থবছরের (২০২০-২০২১) তুলনায় ১ লাখ ৫৪ হাজার ৩৪৪ মেট্রিক টন বেশি।

জানা গেছে, গত ১০ বছর আগেও যেখানে কেবল আমদানি বাণিজ্যে গুরুত্ব ছিল সেখানে এখন বেড়েছে রপ্তানি। গুণগত মান ভালো হওয়ায় ভারতে বাংলাদেশি পণ্যের চাহিদা বেড়েছে। আগে আমদানি হতো এমন অনেক পণ্যই এখন রপ্তানির তালিকায় যুক্ত হয়েছে। এ রপ্তানি পণ্যের মধ্যে রয়েছে পাটজাত পণ্য, তৈরি পোশাক, কেমিক্যাল, অ্যাসিড, কাগজ, মাছ, টিস্যু, মেলামাইন, রাইস ব্রান্ড, ও মেহেগনি ফলসহ শতাধিক প্রকারের পণ্য।

বেনাপোল সিঅ্যান্ডএফ অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি সামছুর রহমান জানান, রপ্তানি বৃদ্ধিতে দেশি পণ্যের যেমন কদর বেড়েছে, ঠিক তেমনি এ বন্দর এলাকায় কর্মসংস্থান ও তৈরি হয়েছে। এছাড়া রেলে ভারত থেকে পণ্য আমদানি হলেও রপ্তানির সুযোগ নেই। পণ্য খালাস করে খালি রেল ফিরে যেতে হয় ভারতে। যদি রেলে এসব পণ্য রপ্তানি করা যায় তবে দ্রুত সময়, কম খরচ ও নিরাপদে পণ্য পরিবহনে সাশ্রয়ী হবেন বলে মনে করছেন তিনি।

বেনাপোল বন্দরের উপ-পরিচালক (প্রশাসন) আব্দুল জলিল জানান, দেশের অর্থনীতিকে সচল রাখতে করোনাকালীনও কাস্টমসের পাশাপাশি বন্দরের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা ২৪ ঘণ্টা বাণিজ্যসেবা চালু রাখায় বিপুল পরিমাণে রপ্তানি বেড়েছে। আরও দ্রুত যাতে রপ্তানি পণ্যবাহী ট্রাক ভারতে প্রবেশ করতে পারে এজন্য ভারতীয় কর্তৃপক্ষকে ব্যবস্থা গ্রহণের অনুরোধ জানানো হয়েছে বলে জানান তিনি।

বেনাপোল কাস্টমসের যুগ্ম কমিশনার আব্দুর রশিদ জানান, বেনাপোল বন্দর দিয়ে ২০২১-২২ অর্থবছরে বাংলাদেশি পণ্য ভারতে রপ্তানি হয়েছে ৪ লাখ ৫১ হাজার ৩৯৫ মেট্রিক টন। আর ২০২০-২১ অর্থবছরে রপ্তানি পণ্যের পরিমাণ ছিল ২ লাখ ৯৭ হাজার ৫০ মেট্রিক টন। যা ২০২১-২২ অর্থ বছরে ১ লাখ ৫৪ হাজার ৩৪৪ মেট্রিক টন পণ্য বেশি রপ্তানি হয়েছে। এবং এ বন্দর দিয়ে রেলপথে ভারতে পণ্য রপ্তানির বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানানো হয়েছে বলে তিনি জানান।

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।