সারাদেশে বন্যায় বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত ১০ হাজার ৭৭৪ জন

নিউজ ডেস্ক, অর্থসংবাদ.কম, ঢাকা প্রকাশ: ২০২২-০৭-০২ ২০:৩৬:১৫

চলমান বন্যায় এ পর্যন্ত সারাদেশে পানিবাহিতসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়েছেন ১০ হাজার ৭৭৪ জন। এ ছাড়াও বন্যায় নানা রোগে আক্রান্ত হয়ে এবং বন্যা সৃষ্ট দুর্ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯৫ জনে।

শনিবার (২ জুলাই) বিকেলে দেশের বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বন্যাজনিত কারণে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ৫৬৫ জন বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়েছেন। তবে এ সময়ে কারও বন্যাজনিত মৃত্যু হয়নি।

আরও জানানো হয়, দেশের ১৫ জেলায় এখন পর্যন্ত ৯৫ জন মারা গেছেন। সিলেট বিভাগেই ৫৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে সিলেট সদর উপজেলায় ১৮, সুনামগঞ্জে ২৮, মৌলভীবাজারে ৫ ও হবিগঞ্জে ৫ জন মারা গেছেন।

ময়মনসিংহ বিভাগে বন্যাজনিত কারণে মৃত্যু হয়েছে ৩৩ জনের। এর মধ্যে ময়মনসিংহে ৬, নেত্রকোণায় ১১, জামালপুরে ৯ ও শেরপুরে ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়াও রংপুর বিভাগে এখন পর্যন্ত বন্যায় ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে কুড়িগ্রামে ৪ ও লালমনিরহাটে একজন মারা গেছেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত ১৭ মে থেকে ২ জুলাই পর্যন্ত দেশে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬ হাজার ৯৬৩ জন। তাদের মধ্যে এখন পর্যন্ত ডায়রিয়ায় একজনের মৃত্যু হয়েছে। আরটিআই (চোখের রোগ) রোগে আক্রান্ত হয়েছে ৪৩২ জন, এ রোগে কারো মৃত্যু হয়নি।

প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, বন্যাকবলিত এলাকায় বজ্রপাতের শিকার হয়েছেন ১৫ জন, তাদের মধ্যে ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। সাপের দংশনের শিকার হয়েছেন ১৪ জন, দুজনের মৃত্যু হয়েছে। পানিতে ডুবে মৃত্যু হয়েছে ৬৮ জনের। এছাড়াও চর্ম রোগে আক্রান্ত ৮৬৪, চোখের প্রদাহজনিত রোগে ২১৫ ও নানাভাবে আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছেন ২৭৭ জন। এ ছাড়া অন্যান্য রোগে আক্রান্ত হয়েছেন ১ হাজার ৯৭৫ জন এবং তাদের মধ্যে মারা গেছেন ৯ জন।

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।