বৃষ্টির প্রবণতা আরও কমতে পারে

নিউজ ডেস্ক, অর্থসংবাদ.কম, ঢাকা প্রকাশ: ২০২২-০৬-২২ ১৪:৪৯:৫৩

দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে মৌসুমি বায়ুর সক্রিয়তা কমার কারণে বুধবার (২২ জুন) বৃষ্টির প্রবণতা আরও কমতে পারে। এছাড়া সব বিভাগে বৃষ্টি হলেও সব এলাকায় বৃষ্টি হবে না বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

এদিকে বন্যা প্লাবিত এলাকা সিলেট অঞ্চলের বৃষ্টি অনেকটাই কমে গেছে। সেই সঙ্গে বন্যা পরিস্থিতিও উন্নতির দিকে। মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের উপর মোটামুটি সক্রিয় ও উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি অবস্থায় রয়েছে বলে গণমাধ্যমে জানিয়েছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর।

মঙ্গলবার রংপুর, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় (৭৬ থেকে শতাংশ স্থানে) এবং রাজশাহী ও ঢাকা বিভাগের অনেক জায়গায় (৫১ থেকে ৭৫ শতাংশ স্থানে) অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়ার সঙ্গে প্রবল বিজলি চমকানোসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টির পূর্বাভাস ছিলো।

সেখানে বুধবার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রংপুর, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় (৫১ থেকে ৭৫ শতাংশ স্থানে) এবং রাজশাহী ও ঢাকা বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় (২৬ থেকে ৫০ শতাংশ স্থানে) অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়ার সঙ্গে প্রবল বিজলি চমকানোসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে রংপুর, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হতে পারে।

এ সময়ে সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে বলেও পূর্বাভাসে জানিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ।

মঙ্গলবার ভোর ৬টা থেকে বুধবার ভোর ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি ১২০ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে কুতুবদিয়ায়। এ সময়ে সিলেটে ১৪ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। ঢাকায় সামান্য বৃষ্টি হয়েছে।

বুধবার সকালে ঢাকায় বৃষ্টি হয়েছে। তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে মেঘ কেটে গিয়ে সূর্যের দেখা মিলেছে। আবহাওয়া দপ্তর বলছে, ঢাকার দিনের তাপমাত্রা কিছুটা বাড়তে পারে।

বুধবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরগুলোর জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রাজশাহী, রংপুর, দিনাজপুর, পাবনা, বগুড়া, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, ঢাকা, ফরিদপুর, মাদারীপুর, যশোর, কুষ্টিয়া, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার এবং সিলেট অঞ্চলের ওপর দিয়ে দক্ষিণ বা দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫-৬০ কিলোমিটার বেগে অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরগুলোকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।