জামিন পেয়েছেন আমান গ্রুপের তিন পরিচালক

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, অর্থসংবাদ.কম, ঢাকা প্রকাশ: ২০২২-০৬-২১ ১২:৪৬:৪৩, আপডেট: ২০২২-০৬-২১ ১২:৪৮:৩৫

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি আমান গ্রুপের চেয়ারম্যানসহ তিন পরিচালককে জামিন দিয়েছে হাইকোর্ট। গতকাল সোমবার (২০ জুন) হাইকোর্ট তাদের আবেদনের শুনানী শেষে তাদের জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।

আমান গ্রুপের দুটি কোম্পানি শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত রয়েছে। কোম্পানি দুটি হচ্ছে – আমান কটন ফাইবার্স ও আমান ফিড লিমিটেড। গত ২৩ মে থেকে আমান গ্রুপের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ রফিকুল ইসলাম, পরিচালক মোঃ শফিকুল ইসলাম ও মোঃ তৌহিদুল ইসলাম যমুনা ব্যাংকের করা এক প্রতারণা মামলায় জেলে আছেন। গ্রেফতার হওয়া তিন ভাই-ই কোম্পানি দুটির পরিচালনা পর্ষদে রয়েছেন।

উচ্চ আদালত থেকে নেওয়া আগাম জামিনের মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় হাইকোর্টের নির্দেশে গত ২৩ মে তারা রাজশাহীর চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে জামিনের আবেদন করেন। আদালত তাদের জামিন আবেদন মঞ্জুর না করে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

জানা যায়, যমুনা ব্যাংক লিমিটেড রাজশাহী শাখা থেকে মেসার্স আরএসএন্ডটি ইন্টারন্যাশনালের নামে ঋণ নিয়েছিলেন প্রতিষ্ঠানটির স্বত্বাধিকারী ও আমান গ্রুপের পরিচালক মোঃ তৌফিকুল ইসলাম। বিধি অনুসারে, এই ঋণের বিপরীতে ১১৩ শতক জমি বন্ধক রাখা হয়। আমান গ্রুপের চেয়ারম্যান মোঃ রফিকুল ইসলাম ও পরিচালক মোঃ শফিকুল ইসলাম ওই ঋণের জামিনদার ছিলেন।

ঋণগ্রহীতা তৌফিকুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে ঋণের কিস্তি শোধ করেননি। এরই মধ্যে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ জানতে পারে, অভিযুক্তরা গোপনে জালিয়াতির মাধ্যমে বন্ধকী সম্পদ অন্য জায়গায় বিক্রির ব্যবস্থা করেছেন। এই ঘটনায় যমুনা ব্যাংকের রাজশাহী শাখার ম্যানেজার ২০১৯ সালে শাহমখদুম থানায় একটি প্রতারণা মামলা দায়ের করেন (সিআর মামলা নং-২৮ সি/১৯ তারিখ (শাহমুখদুম)। মেসার্স আরএসএন্ডটি ইন্টারন্যাশনালের কাছে যমুনা ব্যাংক লিমিটেডের প্রায় ৮৮.০০ কোটি টাকা পাওনা।

 

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।