শেয়ারবাজার নিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের বিতর্কিত কর্মকর্তা আমিনুরকে বদলি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, অর্থসংবাদ.কম, ঢাকা প্রকাশ: ২০২২-০৬-১৬ ১২:০১:৪৮, আপডেট: ২০২২-০৬-১৬ ১২:০৩:৫২

বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তা হিসেবে যিনি দীর্ঘদিন ধরে পুঁজিবাজার বিষয়ে দায়িত্বপ্রাপ্ত ছিলেন তাকে বদলি করা হয়েছে।সেই কর্মকর্তা মোহাম্মদ আমিনুর রহমান চৌধুরীকে অন্য বিভাগে বদলি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। তিনি সবসময় পুঁজিবাজার বিরোধী কর্মকান্ডে জড়িত থাকতেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

জানা যায়, পুঁজিবাজারে উন্নয়নে সবসময় বড় বাধা ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের এই কর্মকর্তা। বাজারকে পেছন থেকে টেনে ধরাই ছিলো যেন তার নিয়মিত কাজ। তার বিরুদ্ধে এর আগেও ব্যবস্থা নেওয়ার জোর দাবি জানিয়েছিলেন বাংলাদেশ পুঁজিবাজার বিনোয়োগকারী ঐক্য পরিষদ। এই আমিনুর রহমান দীর্ঘদিন ধরে ডিপার্টমেন্ট অব অফসাইট সুপারভিশনে ছিলেন। যিনি পুঁজিবাজারের ভালো অবস্থা সহ্য করতে পারেন না এবং বিরোধী কর্মকান্ডের সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগ অনেক দিনের।

বুধবার (১৫ জুন) বাংলাদেশ ব্যাংকের অতিরিক্ত পরিচালক গোলাম মহিউদ্দীন সাক্ষরিত এক চিঠিতে আমিনুর রহমানকে ডিপার্টমেন্ট অব অফসাইট সুপারভিশন থেকে ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগে বদলী করা হয়েছে।

বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদের সভাপতি মিজানুর রশীদ চৌধুরী অর্থসংবাদকে বলেন, একটি লোককে সরালেই সমস্যার সমাধান হবে না। বাংলাদেশ ব্যাংকে আরও বেশি পুঁজিবাজারবান্ধব হতে হবে। পরবর্তীতে যিনি দায়িত্বে আসবেন তিনি যেন দেশপ্রেম নিয়ে পুঁজিবাজারের স্বার্থে কাজ করে।

এই অবস্থায় আমিনুর রহমানকে ডিপার্টমেন্ট অব অফসাইট সুপারভিশনের দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়ায় শেয়ারবাজার সংশ্লিষ্টরা যে খুশি হয়েছেন, তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

অন্যদিকে সম্প্রতি শেয়ারবাজারবান্ধব আব্দুর রউফ তালুকদারকে বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন গভর্নর হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। যার সঙ্গে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলামের পারস্পরিক বোঝাপড়া খুবই ভালো।

এদিকে অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম কমিশনে যোগদানের পর থেকেই শেয়ারবাজারের উন্নয়নে বর্তমানে সিনিয়র অর্থ সচিব আব্দুর রউফের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ করছেন। যাদের মধ্যে দেশের অর্থনীতির স্বার্থে পারস্পরিক বোঝাপড়া এবং সর্ম্পক্য খুবই ভালো। যে কারনে বিএসইসি চেয়ারম্যানের ডাকে সহযোগিতার সর্বোচ্চ চেষ্টাও করেছেন আব্দুর রউফ। তবে তার গভর্নরের নিয়োগের মাধ্যমে আগের চেয়ে অনেক বেশি উপকৃত হবে শেয়ারবাজার। যার নিয়োগে বিনিয়োগ সীমার জটিলতাসহ বাংলাদেশ ব্যাংকের শেয়ারবাজার নিয়ে নেতিবাচক মনোভাব লাঘব হবে বলে মনে করেন শেয়ারবাজার সংশ্লিষ্টরা।

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।