শেয়ারবাজারে আসতে চায় থাই ফয়েলস অ্যান্ড পলিমার

নিউজ ডেস্ক, অর্থ সংবাদ.কম, ঢাকা প্রকাশ: ২০২২-০৬-১৫ ১৯:২৩:৪৮

বুক বিল্ডিংয়ের মাধ্যমে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হতে চায় আল-মোস্তফা গ্রুপের প্রতিষ্ঠান থাই ফয়েলস অ্যান্ড পলিমার ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড। এজন্য গ্রীন ডেল্টা ক্যাপিটাল লিমিটেডের (জিডিসিএল) সাথে চুক্তি করেছে প্রতিষ্ঠানটি। কোম্পানিটি পুঁজিবাজারে আনতে একক ইস্যু ম্যানেজার হিসেবে কাজ করবে গ্রীন ডেল্টা ক্যাপিটাল লিমিটেড।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে সই করেন গ্রীন ডেল্টা ক্যাপিটাল লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রফিকুল ইসলাম এবং আল-মোস্তফা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোস্তফা কামাল।

থাই ফয়েলস অ্যান্ড পলিমার ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও) থেকে উত্তোলন করা টাকা শিল্পক্ষেত্রে ব্যবহৃত রাসায়নিক দ্রব্য উৎপাদনের লক্ষে ব্যবসায় সম্প্রসারন কার্যক্রমে ব্যবহৃত হবে। এসকল উৎপাদিত রাসায়নিক দ্রব্যাদি টেক্সটাইল, ঔষধ, তেল ও গ্যাস, অ্যালুমিনিয়াম, পাল্প ও পেপার,চামড়াশিল্প, ক্যাবল, এবং গৃহস্থালি ভোগ্যপণ্য সহ বাংলাদেশের বাজারে বিভিন্ন উৎপাদন শিল্পে ব্যাপক চাহিদা রয়েছে।

অনুষ্ঠানে গ্রীন ডেল্টা ক্যাপিটালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ রফিকুল ইসলাম বলেন, “পূর্ণাঙ্গ মার্চেন্ট ব্যাংক হিসেবে পুঁজিবাজারে ভালো কোম্পানিগুলোকে নিয়ে আসার জন্য জিডিসিএল এর নিরন্তর প্রচেষ্টা ছিল। তারই ধারাবাহিকতায়,আমরা এবার বুক বিল্ডিং পদ্ধতির অধীনে থাই ফয়েলস অ্যান্ড পলিমার ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডে আইপিওর ইস্যু ম্যানেজার হিসেবে কাজ শুরু করছি। যা জিডিসিএল এর জন্য আরেকটি মাইলফলক হতে চলেছে।”

আল-মোস্তফা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোস্তফা কামাল জানান, “এই মুহুর্তে পূঁজিবাজারে পদচারণ করা আমাদের গ্রুপের জন্য বেশ সময়োপযোগী একটি সিদ্ধান্ত। যা আমাদের মূল ব্যবসায়িক কার্যক্রমের সম্প্রসারনকে ত্বরান্বিত করতে প্রয়োজনীয় মুলধন সংগ্রহ করতে সক্ষম করবে। গ্রীন ডেল্টা ক্যাপিটাল লিমিটেড সামনের দিকে এগিয়ে যাক আমরা সেই কমনা করি। আগামীর সমৃদ্ধ পুঁজিবাজারের পাশাপাশি দেশের অর্থনীতিতেও ইতিবাচক প্রভাব রাখবে গ্রীন ডেল্টা ক্যাপিটাল লিমিটেড ।”

অনুষ্ঠানে আল-মোস্তফা গ্রুপের পরিচালক মোঃ জাফর ইকবাল, মোঃ বাবু হোসেন এবং গ্রীন ডেল্টা ক্যাপিটালের চিফ অপারেটিং অফিসার মোহাম্মদ সোহরাব হোসেনসহ জিডিসিএল এবং আল-মোস্তফা গ্রুপের অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।