সিটি ব্যাংকের লভ্যাংশ অনুমোদন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, অর্থসংবাদ.কম, ঢাকা প্রকাশ: ২০২২-০৬-১২ ১৪:২৮:৩০

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংকিং খাতের সিটি ব্যাংক লিমিটেডের ৩৯তম বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় পরিচালনা পর্ষদ কর্তৃক সুপারিশকৃত ১২ দশমিক ৫০ শতাংশ নগদ এবং ১২ দশমিক ৫০ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ অনুমোদন করা হয়েছে।

রোববার (১২ জুন) ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্মে অনুষ্ঠিত ব্যাংকটির বার্ষিক সাধারণ সভায় সভাপতিত্ব করেন ব্যাংকের চেয়ারম্যান আজিজ আল কায়সার।

এছাড়াও ব্যাংকের ভাইস চেয়ারম্যান হোসেন খালেদ, পরিচালকবৃন্দ তাবাসসুম কায়সার, হোসেন মেহমুদ, সৈয়দা শায়রীন আজিজ, সাভেরা এইচ মাহমুদ, রেবেকা ব্রসন্যান, স্বতন্ত্র পরিচালক ড. সেলিম মাহমুদ, ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মাসরুর আরেফিন, অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিএফও মোঃ মাহবুবুর রহমান এবং বিপুল সংখ্যক শেয়ারহোল্ডার ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত উক্ত এজিএম-এ অংশগ্রহণ করেন। স্বাগত বক্তব্যে ব্যাংকের চেয়ারম্যান আজিজ আল কায়সার ব্যাংকের কিছু কৌশলগত দিক তুলে ধরেন।

তিনি বলেন, প্রগতিশীল চিন্তাধারা ও সামাজিক দায়বদ্ধতার জায়গা থেকে সিটি ব্যাংক দেশের মানুষের জন্য নানাবিধ আর্থিক সেবা চালু করেছে। বর্তমান প্রেক্ষাপটে ব্যাংকিং সেবায় ডিজিটাল প্রযুক্তির প্রসারের কোনো বিকল্প নেই। ‘ডিজিটাল ন্যানো লোন’, ‘এখনই অ্যাকাউন্ট’ অ্যাপ এবং কিউআর কোডভিত্তিক লেনদেন ব্যবস্থা ‘সিটি পে’র মতো সেবা চালু করে সিটি ব্যাংক ডিজিটাল ব্যাংকিংয়ে এগিয়ে যাচ্ছে।

চেয়ারম্যান আরও জানান, ২০২১ সালে সিটি ব্যাংকের নীট মুনাফা হয়েছে ৪৭৪ কোটি টাকা, যা ২০২০ সাল থেকে ৭৩ কোটি টাকা বা ১৮.২ শতাংশ বেশি। ফলশ্রুতিতে এই সময়ে ব্যাংকের রিটার্ন অন ইকুইটি বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছে ১৫.৮ শতাংশ, ২০২০ সালে যা ছিল ১৪.৮ শতাংশ।

৩১ ডিসেম্বর, ২০২১ অনুযায়ী ব্যাংকের নিরীক্ষিত বার্ষিক আর্থিক বিবরণী এই সভায় উপস্থাপন করা হয় এবং সম্মানিত শেয়ারহোল্ডারগণ ব্যাংকের কার্যক্রমের উপর আলোচনা করেন।

ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং সিইও মাসরুর আরেফিন ব্যাংকের কর্মকাণ্ডের সার্বিক চিত্র শেয়ারহোল্ডারদের কাছে তুলে ধরেন এবং ব্যাংকটির ঋণ ও ব্যালান্স শিটের বিশাল প্রবৃদ্ধির সাপেক্ষে মূলধন পর্যাপ্ততার বিষয়টিতে জোর আরোপ করেন। একই সঙ্গে তিনি সার্বক্ষণিক সহায়তা ও দিকনির্দেশনার জন্য বাংলাদেশ ব্যাংক, বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনসহ সকল নিয়ন্ত্রণ সংস্থা এবং ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।