ড্র হলো চট্রগ্রাম টেষ্ট

ডেস্ক রিপোর্টার প্রকাশ: ২০২২-০৫-১৯ ১৬:২০:৪৮, আপডেট: ২০২২-০৫-১৯ ১৬:৪১:০০

চট্টগ্রাম টেস্ট ড্রয়ে মীমাংসা। দুই দলই দাপুটে লড়াই করেছে। সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট ২৩ মে ঢাকায় শুরু হবে।

গত রোববার চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে টস জিতে আগে ব্যাট করে শ্রীলংকা। অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউসের সেঞ্চুরি (১৯৯) আর দিনেশ চান্দিমাল (৬৬) ও কুশল মেন্ডিসের (৫৪) জোড়া ফিফটিতে ভর করে ৩৯৭ রান করে শ্রীলংকা। বাংলাদেশের হয়ে নাঈম হাসান নেন ৬ উইকেট। আর সাকিব শিকার করেন ৩ উইকেট।

জবাবে ব্যাটিংয়ে নেমে তামিম ইকবাল (১৩৩) ও মুশফিকুর রহিমের (১০৫) জোড়া সেঞ্চুরি আর লিটন দাস (৮৮) ও মাহমুদুল হাসান জয়ের (৫৮) জোড়া ফিফটিতে ভর করে ৪৬৫ রান করে বাংলাদেশ।

৬৮ রানে পিছিয়ে থেকে বুধবার চতুর্থ দিনের শেষ বিকেলে ৩৯ রান তুলতেই ২ উইকেট হারায় শ্রীলংকা। বৃহস্পতিবার শেষ দিনে ব্যাটিংয়ে নেমে অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নের সঙ্গে ৬৭ রানের জুটি গড়ে আউট হন কুশল মেন্ডিস।

এরপর ৫৫ রানে ৪ উইকেট হারায় শ্রীলংকা। প্রথম ইনিংসে ৫৪ রান করা মেন্ডিসকে দ্বিতীয় ইনিংসে ৪৮ রানে ফেরান তাইজুল।

প্রথম ইনিংসে ১৯৯ রান করা অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউসকে দ্বিতীয় ইনিংসে রানের খাতাই খুলতে দেননি স্পিনার তাইজুল ইসলাম।

দ্বিতীয় ইনিংসের শুরু থেকে বাড়তি দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিয়ে ব্যাটিং করে যাওয়া লংকান অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নেকে ৫২ রানে ফেরান তাইজুল। ৬০ বলে ৩৩ রান করা ধনাঞ্জয়া ডি সিলভাকে ফেরান সাকিব আল হাসান।

১৬১ রানে ৬ উইকেট পতনের পর শ্রীলংকার হাল ধরেন দিনেশ চান্দিমাল ও নিরশন ডিকভেলা। সপ্তম উইকেটে তারা ৯৯ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়ার পর উভয় দল ম্যাচ ড্র মেনে নিয়ে মাঠ ছাড়ে। ৩৯ ও ৬১ রানে অপরাজিত থাকেন চান্দিমাল ও ডিকভেলা। বাংলাদেশ দলের হয়ে তাইজুল ইসলাম শিকার করেন ৪ উইকেট।

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।